চরফ্যাসনে ইমামকে মারধরের অভিযোগে ফিরোজ হাজী আটক অসহায় নারীকে নির্যাতনের অভিযোগে ঝালকাঠির চপলেরের বিরুদ্ধে মামলা ! বরিশালে নগরীতে আ’লীগ নেতার ভবনে চাকুরীর প্রলোভনে জিম্মি করে দেহব্যবসা ! ডিবির অভিযানে আটক-৩, ২ নারী উদ্ধার প্রধানমন্ত্রীর দেয়া সাংবাদিকদের জন্য প্রনোদনা বরিশালে সুষম বন্টন হওয়া উচিত ছিলো বরিশাল পলাশপুরে পিতা ধর্ষণ করলো মেয়েকে ! মঠবাড়িয়ায় স্বামী স্ত্রী ও সন্তানের রহস্যজনক মৃত্যু, লাশ উদ্ধার পবিত্র ঈদ-উল আযাহা উপলক্ষে ১০নং ওয়ার্ডবাসীকে শুভেচ্ছা জানালেন কাউন্সিলর এটিএম শহিদুল্লাহ কবির ঈদের আনন্দ করতে গিয়ে যেন করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি না পায় এজন্য সবাইকে সর্তক থাকতে হবে, বিএমপি কমিশনার প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ দুলারহাট বন্ধু ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে হত দরিদ্র, সুবিধা বঞ্চিত নারী ও শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ

অবিলম্বে করোনা টেস্টে আরোপিত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে বাসদের বিক্ষোভ সমাবেশ

লিটন বায়েজিদ,বরিশালঃ
অবিলম্বে করোনা ভাইরাস জনিত রোগ কোভিড-১৯ এর শনাক্তকরণ পরীক্ষার জন্য বুথ, হাসপাতাল এবং বাসায় পরীক্ষার ফি ২০০-৫০০ টাকা প্রত্যাহার এবং করোনা রোগের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার দাবিতে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ বরিশাল জেলা শাখা আজ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

সকাল ১১টায় ফকিরবাড়ি রোড থেকে মিছিল শুরু হয়ে নগরীর প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে টাউন হলের সামনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বাসদ বরিশাল জেলা আহ্বায়ক প্রকৌশলী ইমরান হাবিব রুমনের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তীর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাসদ নেতা সন্তু মিত্র, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের সাংগঠনিক সম্পাদক শহীদুল ইসলাম, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের সহসভাপতি মাফিয়া বেগম, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট বরিশাল মহানগরের সাংগঠনিক সম্পাদক সুজন আহমেদ, বিজন সিকদার, সাইফুল ইসলাম। সংহতি জানিয়ে বক্তব্য দেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল মাক্সবাদীর সাইদুল ইসলাম।

প্রকৌশলী ইমরান হাবিব রুমন বলেন, সারাবিশে যেখানে বিনামূল্যে করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে এই সংক্রমন রোধে প্রচুর টেস্ট করে আক্রান্তদের সার্বিক সহযোগিতার মাধ্যকে এই সংকট মোকাবেলা করছে তখন আমাদের দেশে করোনা পরীক্ষার জন্য ফি আরোপের ঘটনা খুবই হতাশাজনক এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের দেউলিয়াত্বের বহিপ্রকাশ। এই ফি আরোপের ফলে দারিদ্রপীড়িত জনগোষ্ঠিকে আদতে পরীক্ষা থেকে দূরে সরিয়ে পুরো স্বাস্থ্যব্যবস্থাকেই আরও ঝুঁকির মধ্যে ফেললো।

ডা. মনীষা চক্রবর্ত্তী বলেন, যখন আমরা করোনা টেস্টে দীর্ঘসূত্রিতা ও হয়রানী বন্ধ, পিসিআর ল্যাব বাড়িয়ে প্রতিদিন কমপক্ষে ১০০০ টেস্ট, করোনা রোগী পরিবহনে বিশেষ এম্বুলেন্স সার্ভিস চালু করা সহ ৮ দফা দাবি বাস্তবায়নের দাবিতে আন্দোলন করছি তখন এই দাবি না মেনে উল্টো করোনা পরীক্ষার ফি আরোপ করা বিষ্ময়কর। প্রতিদিনই পত্রিকার পাতায় স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতির চিত্র উঠে আসছে। জনগণের ট্যাক্সের টাকায় পিপিই কেনার ক্ষেত্রে পুকুরচুরির ঘটনা ঘটেছে। ঢাকা মেডিকেলে ১ মাসে ২০ কোটি টাকা খরচের ঘটনায় সবাই হতবাগ হয়েছে। এই লুটপাট দুর্নীতি বন্ধে কার্যকর কোন ব্যবস্থা না নিয়ে এর দায় জনগণের উপর চাপানো হচ্ছে। তাই অবিলম্বে এই আরোপিত ফি প্রত্যাহার করতে হবে। এবং করোনা চিকিৎসা সুলভ করতে হবে। পর্যাপ্ত টেস্টের এবং বাসায় বাসায় গিয়ে নমুনা সংগ্রহের ব্যবস্থা করতে হবে। অবিলম্বে বেসরকারি হাসপাতালেও করোনা চিকিৎসার দায়িত্ব সরকারকে নিতে হবে।

মুজিববর্ষ