চরফ্যাসনে ইমামকে মারধরের অভিযোগে ফিরোজ হাজী আটক অসহায় নারীকে নির্যাতনের অভিযোগে ঝালকাঠির চপলেরের বিরুদ্ধে মামলা ! বরিশালে নগরীতে আ’লীগ নেতার ভবনে চাকুরীর প্রলোভনে জিম্মি করে দেহব্যবসা ! ডিবির অভিযানে আটক-৩, ২ নারী উদ্ধার প্রধানমন্ত্রীর দেয়া সাংবাদিকদের জন্য প্রনোদনা বরিশালে সুষম বন্টন হওয়া উচিত ছিলো বরিশাল পলাশপুরে পিতা ধর্ষণ করলো মেয়েকে ! মঠবাড়িয়ায় স্বামী স্ত্রী ও সন্তানের রহস্যজনক মৃত্যু, লাশ উদ্ধার পবিত্র ঈদ-উল আযাহা উপলক্ষে ১০নং ওয়ার্ডবাসীকে শুভেচ্ছা জানালেন কাউন্সিলর এটিএম শহিদুল্লাহ কবির ঈদের আনন্দ করতে গিয়ে যেন করোনার প্রকোপ বৃদ্ধি না পায় এজন্য সবাইকে সর্তক থাকতে হবে, বিএমপি কমিশনার প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ দুলারহাট বন্ধু ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে হত দরিদ্র, সুবিধা বঞ্চিত নারী ও শিশুদের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ

আন্দোলনে আশার আলো দেখছে বরিশালবাসী, কলেজের নাম অপরিবর্তিত থাকুক

আসাদুজ্জামান,মন্তব্য কলাম : আশার আলো দেখছেন বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার দাবিতে সিংহভাগ লোকের সমর্থিত আন্দোলনকারীরা। তারা মনে করছেন বরিশালে ইতিহাস ঐতিহ্যের সাথে জড়িত সরকারী বরিশাল কলেজ নামটি। তাই বরিশালের শতকরা ৯০ ভাগ লোক দলমত নির্বিশেষে একাত্মতা প্রকাশ করে আন্দোলনে যুক্ত হয়েছে। বরিশালের ৯০ ভাগ নাগরিকের মতের বাইরে গিয়ে নাগরিক সমাজ দাবিদার কয়েকজনের দাবি গ্রহণযোগ্য হতে পারেনা।

বরিশালে মুক্তিযোদ্ধা, এমপি, মন্ত্রী, মেয়র, কাউন্সিলর ও রাজনৈতিক এবং জনগণসহ সর্বমহলকে অগ্রাহ্য করে বরিশালবাসীর বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে বরিশাল কলেজের নাম পরিবর্তনের দাবিকে বরিশালের নাম মুছে ফেলার শামিল মনে করছে অনেকে। পক্ষে বিপক্ষে আন্দোলনের ফলে নানান ধরনের মন্তব্য করছেন নগরবাসী। বেশিরভাগ মানুষ বলছেন হাতেগানা জনবিচ্ছিন্ন কয়েক ব্যক্তির নিকট বরিশালকে লিজ দিয়েছে কারা ? যাদের কথায় বরিশালের ১% নাগরিকও সমর্থন করেনা তারাই নিজেকে বরিশালবাসীর ভাগ্যকর্তা দাবি করে মাঝে মধ্যে রাজপথে ব্যানার নিয়ে চেচামেচি করতে দেখা যায়। ফলে সাময়িক সময়ের আলোচনা সমালোচনা ছাড়া সাধারন মানুষের ভাগ্যন্নোয়ন বা জনমঙ্গলকর কোনো কার্য সম্পাদন হয়না।

এটা বরিশালবাসীর কাছে স্পষ্ট হয়ে গিয়াছে ফলে বরিশাল কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার পক্ষে কলেজের বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্রদের মানববন্ধন, গণস্বাক্ষর, গোলটেবিল বৈঠক কর্মসূচিতে একাত্মতা প্রকাশ করে মাঠে নেমেছেন দেশের গর্বিত সন্তান মুক্তিযোদ্ধারা, এছাড়াও ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন, বরিশাল কলেজের আওয়ামীলীগ ও বিএনপি ঘরানার সমর্থিত প্যানেলে ভিপি পদে নির্বাচিত সাবেক ছাত্রনেতারা। তাদের সাথে দলমত নির্বিশেষে প্রভাবশালী সকল রাজনৈতিক দলের সমর্থিত নেতা কর্মীরা বরিশালের ঐতিহ্যকে ধরে রাখতে ছাত্রদের সাথে একাত্মতা প্রকাশ করে কলেজের নাম অপরিবর্তিত রাখার পক্ষে মত প্রকাশ করেছেন। নগরীর টাউন হলের সামনে গণস্বাক্ষর কর্মসূচিতে সাক্ষর করেছেন ৩০ হাজারের বেশি মানুষ।

এছাড়াও বরিশাল জেলা প্রশাসক ও শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান বরাবর স্বারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। বরিশাল কলেজের সাবেক ভিপি এ্যাড. এ কে এম জাহাঙ্গির হোসেন এ বিষয়ে বলেন, বরিশালের শতকরা ৯০ ভাগ লোকের সমর্থনের বাইরে গিয়ে বরিশাল কলেজের নাম পরিবর্তন হতে পারে না। বেশির ভাগ লোকের মতামত প্রাধান্য পাওয়া উচিত বলে মনে করছেন তারা। সেই হিসাবে সকলেই আশার আলো দেখছেন ।

মুজিববর্ষ