করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত নগরীজুড়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে- মেয়র সাদিক পিরোজপুরে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় শিক্ষার্থীর পা ভেঙ্গে দিল বখাটে ভোলা সদর হাসপাতালে করোনা ইউনিটে নেওয়ার সময় রোগীর মৃত্যু গৌরনদীতে এমপি হাসানাত আব্দুল্লাহ’র নিজ অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শেবাচিমে পিসিআর মেশিন স্থাপনের কাজ পরিদর্শন করেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী ছুটি বাড়ল ১১ এপ্রিল পর্যন্ত, আদেশ জারি জেনে নিন তেঁতুলের গুণ সম্পর্কে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ভয়াবহ সঙ্কট তৈরি করেছে করোনা: গুতেরেস ৫৫ বছরের দাদাকে বিয়ে করতে নাতির আত্মহত্যার চেষ্টা! খুব কষ্টকর দুটো সপ্তাহ ও কষ্টের সময় আসছে: ট্রাম্প

এক সাধারণ মানুষের অসাধারণ কাজে মুগ্ধ সবাই!

বিশেষ প্রতিবেদকঃ
বরিশালের ছেলে রাজধানীতে মানবসেবা করে অসাধারণ ব্যক্তিত্বর সম্মান অর্জন করেছে।সরকারি ছুটিতেও অন্যদের ন্যায় বাড়ি না ফিরে সরকারের দেয়া নির্দেশনা মেনে ঢাকায় অবস্থান করে মানবসেবায় জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম নিয়ে সাধারণদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরন করছে।নাম মোঃ ফেরদাউছ সিকদার, জিনিয়াস ফেরদাউছ নামে পরিচিত। পেশায় একজন চাকরিজীবী। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের, সাব সেন্টার গাজীপুর ১নং ওয়ার্ডের পানিশাইল গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের আইটি বিভাগে কর্মরত আছেন। কর্মরত অবস্থায় পাশাপাশি মানব সেবায় নিয়োজিত আছেন তিনি। যেখানে সারাবিশ্ব করোনা ভাইরাস মহামারি ধারন করায় আতঙ্কিত বিশ্ববাসী, বাংলাদেশেও রয়েছে এর আতঙ্ক। সারাদেশে বন্ধ করা হয়েছে স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, ইতিমধ্যে বন্ধের ঘোষনা করেছে সকল মার্কেট শপিং মল, এছাড়াও দেশের বিভিন্ন জেলা গুলোর উপজেলা লগডাউন করা হয়েছে। সাধারণ মানুষের মধ্যে রয়েছে আতঙ্ক। এই মহামারি করোনা ভাইরাসের এখনো কোন ঔষধ আবিষ্কার হয়নি, বর্তমানে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা এর কিছু বিকল্প উপায় বলেছেন তার মধ্যে সবাইকে কিছুক্ষণ পর পর সাবান দিয়ে অন্তত (২০ সেকেন্ড হাত পরিষ্কার করার বলা হয়েছে) আরো বলা হয়েছে নিয়মিত মাস্ক ব্যবহারের কথা। এছাড়াও রয়েছে বিভিন্ন সচেতনতার বার্তা। এরি ধারাবাহিকতায় জিনিয়াস ফেরদাউছ সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে তিনি তার নিজ উদ্যোগে বিভিন্ন গার্মেন্টস ফ্যাক্টরির দ্বারা ইতি মধ্যে ৪শ’র মত মাস্ক সংগ্রহ করে গাজীপুর ১নং ওয়ার্ডে থাকা দিন মজুরি খেটে খাওয়া মানুষ, গার্মেন্টস শ্রমিকদ, ভ্যান চালক, কাঁচা মালের দোকানীসহ বিভিন্ন পেশার মানুষের মধ্যে মাস্কগুলো সুন্দরভাবে বিতরন করেন। গতকাল পানিশাইল গ্রামের স্থানীয় প্রতিনিধিদের সাথে নিয়ে নিজ উদ্যোগে হাত পরিষ্কার কর্ণার তৈরি করে গণস্বাস্থ্য মোড়ে একটি পানির ড্রাম বসিয়েছে।

তারকাছে এই মানবিক কাজের কথা জানতে চাইলে বলেন, প্রথমত বাংলাদেশ সারাবিশ্বের দরবারে চিকিৎসা সেবায় পিছিয়ে রয়েছেন, করোনা ভাইরাস মোকাবেলার জন্য দেশের ডাক্তার ও নার্স হাসপাতালের স্টাফসহ নিরাপত্তা সামগ্রী পিপিই পাননি। হাসপাতালের সবাই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। অন্যদিকে সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সবমিলিয়ে এখন হতাশার মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশের সবাই। দেশে অনেক ধনি মানুষ থাকলেও কেউ আসছেননা কারো সহযোগিতায়। এই কথা ভেবে জিনিয়াস ফেরদাউছ মানবসেবায় নিয়োজিত হন। তকর একটাই উদ্দেশ্য তার দেখাদেখি যেন অন্যরাও সাধারণত মানুষের পাশে দাড়ান।

জিনিয়াস ফেরদাউছ আরো বলেন, এই মানবিক কাজের সময়ে তাকে অনেকে উৎসাহিত করেন। তিনি বলেন দেশের সনামধন্য প্রতিষ্ঠান, ধনিরা আজ ঘরে বসে ফেইসবুকে জনসেবা করছেন। তারা সবাই যদি সাধারণ মানুষের পাশে দাড়ান তবে দেশের জন্য মঙ্গল হবে।

তিনি এবিষয়ে আরো বলেন, আগামীকাল হয়তো আরো কয়েকটি হাত ধোয়ার পানির ড্রাম ও মাস্ক বিতরন করবেন এবং করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় ক্লান্তিহীন কাজ করে যাবে সাধারণ মানুষের জন্য।

মুজিববর্ষ