করোনা পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত নগরীজুড়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে- মেয়র সাদিক পিরোজপুরে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় শিক্ষার্থীর পা ভেঙ্গে দিল বখাটে ভোলা সদর হাসপাতালে করোনা ইউনিটে নেওয়ার সময় রোগীর মৃত্যু গৌরনদীতে এমপি হাসানাত আব্দুল্লাহ’র নিজ অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শেবাচিমে পিসিআর মেশিন স্থাপনের কাজ পরিদর্শন করেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী ছুটি বাড়ল ১১ এপ্রিল পর্যন্ত, আদেশ জারি জেনে নিন তেঁতুলের গুণ সম্পর্কে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ভয়াবহ সঙ্কট তৈরি করেছে করোনা: গুতেরেস ৫৫ বছরের দাদাকে বিয়ে করতে নাতির আত্মহত্যার চেষ্টা! খুব কষ্টকর দুটো সপ্তাহ ও কষ্টের সময় আসছে: ট্রাম্প

এ কেমন মা!

অনলাইন ডেস্ক: আসছে হোলি উৎসব। উৎসবে নিজে নিজে সাজবেন, ছেলে-মেয়েদেরও সাজাবেন। তাই স্বামীর কাছে নিজের ও দুই ছেলে-মেয়ের জন্য নতুন পোশাকের আবদার করেছিলেন এক নারী। কিন্তু পর্যাপ্ত অর্থ না থাকায় তার বায়না রাখতে পারেননি তার স্বামী। এজন্য স্বামীর সঙ্গে রাগ করে ৬ মাসের মেয়েকে আছড়ে মারলেন মা। এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের আলিগড় জেলার। এই নৃসংশ ঘটনায় শোকের ছায়া নেমেছে গোটা এলাকায়।

পুলিশের বরাত দিয়ে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভি জানায়, চার বছর আগে পিঙ্কি শর্মার বিয়ে হয় রাহুলের সঙ্গে। তাদের দুই সন্তান। তিন বছরের ছেলে আর ছয় মাসের মেয়ে। রাহুল পেশায় কারখানার কর্মী। হঠাৎ করে কারখানা বন্ধ হয়ে গেলে স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে বিপদে পড়েন রাহুল। সেই অবস্থার মধ্যেও দোল উৎসবে নতুন পোশাকের জন্য জেদাজেদি করতে থাকে পিঙ্কি। স্বামী তার আবদার রাখতে পারবে না জানার পরই রাগের মাথায় এমন অমানবিক কাণ্ড ঘটান পিঙ্কি।

পরে রাহুলের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে পিঙ্কিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধরা পড়ার পর পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে পিঙ্কি জানায়, মেয়েকে খুনের কোনও অভিপ্রায় ছিল না তার। রাগের মাথায় হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে এমন কাজ করেছেন তিনি। বিষয়টি খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

তবে প্রতিবেশীদের দাবি, দীর্ঘদিন ধরেই আর্থিক অনটনে ভুগছিল শর্মা পরিবার। নিত্য অশান্তি, ঝগড়া লেগেই থাকত। তারই জেরে মায়ের হাতে প্রাণ হারালো ৬ মাসের ওই শিশুটি।

মুজিববর্ষ