বরিশালে ৮৪ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বরিশালে স্বাস্থ্যবিধি মনিটরিং করতে জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট, বাস ও যাত্রীকে জরিমানা বরিশালে বোরো ধান সংগ্রহ কার্ষক্রম-২০২০ এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত অসুস্থ মোশারফ হোসেনকে মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ’র আর্থিক সহয়তা প্রদান নিষেধাজ্ঞা সত্বেও বরিশালে কিস্তি আদায়ে এনজিও গুলোর চাপ প্রয়োগ বরিশাল লঞ্চঘাটে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করার তিনটি লঞ্চ ও ৫জন যাত্রীকে ১৪হাজার টাকা জরিমানা শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি কার্যকর করতে কঠোর অবস্থানে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ বরিশাল পলাশপুরে ড্রেজার মামুনের বিয়ে বানিজ্য! বিয়ে পর অস্বিকার করলেন স্ত্রীকে উজিরপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে যুবতির মৃত্যু, নমুনা সংগ্রহ বরিশালের পুলিশ সুপারসহ ২ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার অভিযোগ!

জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট বিভিন্ন অপরাধে ১০হাজার টাকা জরিমানা

জুবায়ের ইসলামঃ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বরিশাল জেলা প্রশাসনের নিয়মিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজও বরিশাল নগরীতে মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে ।

১৫এপ্রিল রোজ বুধবার সকাল থেকে বরিশাল নগরীর সদর রোড , বাজার রোড, ভাটিখানা বাজার , কাঠপট্টি, পোর্ট রোড, চকবাজার রোড, বগুড়া রোড, নতুন বাজার , আমতলার মোড়, সাগরদী, রুপাতলী, শের-ই-বাংলা মেডিকেলে, চাঁদমারী রোড, চকবাজার, লাইন রোড, চৌমাথা, ,বটতলা বাজার, নথুল্লাবাদসহ বিভিন্ন এলাকায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করা হয় ।

অভিযানকালে জনসমাগম করে অপ্রয়োজনীয় কারনে দোকান খোলা রাখা এবং সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না করার অপরাধে ব্যবসায়ী ও ব্যক্তিদের জরিমানা করা হয়েছে ।

জনসমাগম নিয়ন্ত্রণ করতে বরিশাল জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন অপরাধে ৫টি দোকান এবং দুই জন ব্যক্তিকে ১০হাজার টাকা জরিমানা অাদায় করেছে ।

নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়কে, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অধিক মানুষের সমাগম এবং চায়ের দোকানসহ অপ্রয়োজনীয় কারনে দোকান খোলা রাখা থেকে বিরত থাকার নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

জণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে জেলা প্রশাসক এস, এম, অজিয়র রহমানের নির্দেশনায় মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করা হয় ।

মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট মোঃ নাজমূল হুদা এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আতাউর রাব্বী ।

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ করতে ও জনসচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি এসময় বিভিন্ন টি-স্টল, মুদি দোকান ও এলাকার মোড়ে মোড়ে যেখানেই জনসমাগম দেখা গেছে তা ছত্রভঙ্গ করা হয় এবং নিরাপদ দূরত্বে চলার নির্দেশনা প্রদান করা হয়।

এছাড়াও সকলকে মাস্ক পরার নির্দেশনা প্রদানের পাশাপাশি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনসাধারণের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয় ।

সবাইকে যৌক্তিক প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে আসতে নিষেধ করা হয় এবং সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে জরুরি সেবা যেমন ঔষধ ব্যতীত সকল প্রকার দোকান বন্ধ রাখার নির্দেশ প্রদান করা হয়।

বরিশাল জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নাজমূল হুদা নগরীর বাজার রোড এলাকায় জনসমাগম করে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত না করে অপ্রয়োজনীয় দোকান খোলা রাখা অপরাধে দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারা মোতাবেক গোপাল সাহাকে ২হাজার টাকা জরিমানা করেন ।

এছাড়াও ভাটিখানা এলাকায় একটি স্বর্ণাকারের দোকান খোলা রেখে জনসমাগম করার অপরাধে একই আইনে ২হাজার টাকা এবং একটি বিউটি পার্লার খোলা রেখে জনসমাগম করার অপরাধে ৫০০ টাকা জরিমানা করেন ।

অপ্রয়োজনে মোটরসাইকেল নিয়ে ঘোরাফেরা করার অপরাধে দুই ব্যক্তিকে একই আইনে ৫০০ টাকা করে মোট ১হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

নগরীর কাঠপট্টি এলাকায় একটি ইলেকট্রনিক দোকান খোলা রেখে অধিক জনসমাগম করায় রশিদ নামের এক ব্যক্তি কে ৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় ।

আর একটি মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করেন বরিশাল জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আতাউর রাব্বী । অভিযান পরিচালনা কালে বিভিন্ন টি-স্টল, মুদি দোকান ও এলাকার মোড়ে মোড়ে যেখানেই জনসমাগম দেখেছেন সেখানেই হ্যান্ড মাইক ব্যবহার করে জনসচেতনতা সৃষ্টি জন্য চেষ্টা করপছেন।

জনসাধারণকে নিরাপদ দূরত্ব মেনে চলার নির্দেশনা প্রদান করেন। পাশাপাশি সবাইকে যৌক্তিক প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে আসতে নিষেধ করা করেন । এসময় অপ্রয়োজনীয় কারনে একটি দোকান খোলা রেখে জনসমাগম করার অপরাধে দন্ডবিধি ১৮৬০ এর ২৬৯ ধারা মোতাবেক দোকান মালিককে ৫০০ টাকা জরিমানা করেন ।

অভিযান শেষে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট মোঃ নাজমূল হুদা ও মোঃ আতাউর রাব্বী সাংবাদিকদের বলেন, জনগণকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রক্ষা এবং করোনা ভাইরাসের বিস্তার এবং এটিকে পুঁজি করে অসাধু ব্যবসায়ীদের বাজার অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টা রোধ করতে আমরা মাঠে রয়েছি।

তারা আরও বলেন, জেলা প্রশাসক জনাব এস, এম, অজিয়র রহমানের নির্দেশনায় আমরা কাজ করে যাচ্ছি । পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত আমাদের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।

অভিযানে সহযোগীতা করে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ ও র‌্যাব-৮ এর কয়েকটি টিম ।

মুজিববর্ষ