বরিশালে ৮৪ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বরিশালে স্বাস্থ্যবিধি মনিটরিং করতে জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট, বাস ও যাত্রীকে জরিমানা বরিশালে বোরো ধান সংগ্রহ কার্ষক্রম-২০২০ এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত অসুস্থ মোশারফ হোসেনকে মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ’র আর্থিক সহয়তা প্রদান নিষেধাজ্ঞা সত্বেও বরিশালে কিস্তি আদায়ে এনজিও গুলোর চাপ প্রয়োগ বরিশাল লঞ্চঘাটে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করার তিনটি লঞ্চ ও ৫জন যাত্রীকে ১৪হাজার টাকা জরিমানা শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি কার্যকর করতে কঠোর অবস্থানে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ বরিশাল পলাশপুরে ড্রেজার মামুনের বিয়ে বানিজ্য! বিয়ে পর অস্বিকার করলেন স্ত্রীকে উজিরপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে যুবতির মৃত্যু, নমুনা সংগ্রহ বরিশালের পুলিশ সুপারসহ ২ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার অভিযোগ!

পিরোজপুরে ২০০ টাকার পান এখন ৫৫ টাকা

পিরোজপুরে পানের ভালো ফলন হলেও তীব্র শীতের কারণে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন চাষিরা। শীত ও কুয়াশার প্রভাবে লতা থেকে ঝরে পড়া ও বিভিন্ন পোকার আক্রমণে নষ্ট হচ্ছে পান। এতে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছেন তারা। বছর শেষে এ সময়ই কিছুটা লাভের মুখ দেখেন চাষিরা। কিন্তু অব্যাহত শীত ও কুয়াশার কারণে ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে।

সদর উপজেলার কদমতলা ইউনিয়নের পান চাষি সমির বলেন, ‘শীত ও কুয়াশায় পান পাতা হলুদ হয়ে ঝরে যাচ্ছে। আবার পছলা পোকাসহ বিভিন্ন আক্রমণে নষ্ট হচ্ছে পান। এভাবে চলতে থাকলে লাভ তো দূরের কথা, আসল টাকাই আসবে না।’

সদর উপজেলার রানীপুর গ্রামের পান চাষি উত্তম দাস বলেন, ‘বর্তমানে পানের বাজার মূল্য পোন প্রতি ১৫০-২০০ টাকা হলেও ঝরা পান বিক্রি হচ্ছে ৪৫-৫৫ টাকায়। আগের মতোই পানের বরজে পলিথিনের ছাউনি দিলেও কোনো কাজ হচ্ছে না। সমস্যার কথা কৃষি অফিসে জানালেও কোনো সহযোগিতা পাওয়া যাচ্ছে না।’

পিরোজপুর খামার বাড়ির উপ-পরিচালক আবু হেনা মোহাম্মদ জাফর বলেন, ‘জেলায় এ বছর ৯৬৮ হেক্টর জমিতে পান চাষ করা হয়েছে। এ বছর শীত বেশি থাকায় পান পাতা ঝরে যাচ্ছে। তবে আমরা সহযোগিতা নিয়ে চাষিদের পাশে সব সময় থাকার চেষ্টা করি।’

মুজিববর্ষ