বরিশালে ৮৪ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বরিশালে স্বাস্থ্যবিধি মনিটরিং করতে জেলা প্রশাসনের মোবাইল কোর্ট, বাস ও যাত্রীকে জরিমানা বরিশালে বোরো ধান সংগ্রহ কার্ষক্রম-২০২০ এর শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত অসুস্থ মোশারফ হোসেনকে মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ’র আর্থিক সহয়তা প্রদান নিষেধাজ্ঞা সত্বেও বরিশালে কিস্তি আদায়ে এনজিও গুলোর চাপ প্রয়োগ বরিশাল লঞ্চঘাটে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করার তিনটি লঞ্চ ও ৫জন যাত্রীকে ১৪হাজার টাকা জরিমানা শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি কার্যকর করতে কঠোর অবস্থানে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ বরিশাল পলাশপুরে ড্রেজার মামুনের বিয়ে বানিজ্য! বিয়ে পর অস্বিকার করলেন স্ত্রীকে উজিরপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে যুবতির মৃত্যু, নমুনা সংগ্রহ বরিশালের পুলিশ সুপারসহ ২ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার অভিযোগ!

পুলিশ সদস্যদের যাকাতের অর্থ অসহায় মানুষের মাঝে বিতরণ করেছেন, বিএমপি কমিশনার

 

জুবায়ের ইসলামঃ মানব সেবায় নিজেকে আত্মনিয়োগ করে সহকর্মীদের নিয়ে একযোগে কাজ করে যাচ্ছেন বিএমপি কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম বার। মানবিক কাজের মাধ্যমে ইতোমধ্যে মানবিক কমিশনার হিসেবে পরিচিত হয়েছেন বরিশালবাসীর কাছে ।

আধুনিক ও সৃষ্টিশীল চিন্তাভাবনার মাধ্যমে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে প্রশংসিত হয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও মিডিয়া পাড়ায়। অনেক মানুষ তাকে পুলিশ কমিশনার বলতে রাজি না তাদের কাছে একজন মানবিক কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান।

সরকার লগডাউন শিথিল করে দেশর কিছু কিছু উৎপাদন মূলক কর্ম ক্ষেত্র খুলে দিলেও মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবারের ভাগ্যের তেমন কোন পরিবর্তন হয়নি।দিন দিন করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ার ভয়ে মানুষ তেমন রাস্তায় নামছে না। আর আগের মতো কর্মক্ষেত্রও স্বাভাবিক হচ্ছে না ।তাই অসহায় পরিবারগুলোতে খাবারের চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলেছে।

এবার অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে অন্য রকম এক মহৎ উদ্দেশ্য নিয়ে কর্মহীন মধ্যবিত্ত ও ক্ষুধার্ত পরিবারের মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিএমপি কমিশনার ।

অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এ বছর যাকাতের অর্থ সংগ্রহ করার জন্য বিএমপি সদস্যদের নিয়ে গঠন করেছেন একটি বিশেষ ফান্ড ।পাশাপাশি বিএমপিতে কর্মরত সকল সদস্যদের প্রতি যাকাতের অর্থ উক্ত ফান্ডে দান করতে অনুরোধ করেন এবং সকল সদস্য দান করে।

বিএমপি কমিশনারের নির্দেশে অসহায় মানুষের তালিকা তৈরি করে যাছাই বাছাই করে সেই অর্থ ১৯শে মে রোজ মঙ্গলবার বরিশাল নগরীর ১৫টি পরিবার ও ৪টি এতিমখানায় বিতরণ করা হয়।

এ বিষয় পুলিশ কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম বার বলেন, যাকাত দেয়ার বিষয়টা আসলে প্রচার করা ঠিক না। ধর্মীয় দৃষ্টি কোন থেকে আমরা নিজেদের মধ্যে একটি ফান্ড গঠন করেছি এবং অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি।যেহেতু আমরা এখানে কর্মরত আছি তাই আমাদের উপর এখানের মানুষেরও কিছু হক রয়েছে সেটা আদায় করেছি মাত্র ।

যাকাতের অর্থ বিতরণ করে স্টাফ অফিসার সহকারী পুলিশ কমিশনার মোঃ আবদুল হালিম বলেন, আমরা যে অর্থ প্রদান করেছি পরিবারগুলোকে সেটা তাদের অর্থনৈতি ভাবে ঘুরে দাড়াতে সাহায্য করবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।

এদিকে সহযোগীতা পেয়ে বিএমপি কমিশনার মোঃ শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম বারসহ বিএমপির সকল সদস্যদের ধন্যবাদ জানিয়েছে সুবিধাভোগী পরিবার ও মানুষ।

মুজিববর্ষ