গৌরনদীতে নারীলোভী শিক্ষকের অপকর্ম ফাঁস! আমার ছেলেকে পঙ্গু করে দিতে চেয়েছিলো বরিশাল রেঞ্জের কনস্টেবল সাইফুল শিশু সহিংসতা বন্ধে এবং দোষিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর এনসিটিএফ এর স্বারকলিপি প্রদান বরিশালে ভুয়া সাংবাদিকের ছড়াছড়ি, যানবাহনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের স্টিকার! সরকারী বরিশাল কলেজের নাম মুছে ফেললে কঠোর আন্দোলন বাকেরগঞ্জে লাশের মিছিল! আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আরো কঠোর হতে হবে বিয়েতে মেয়েরাও যৌতুক নেয়! নলছিটিতে পৌর কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে জেলেদের চাল আত্মসাতের অভিযোগ বরিশালে গনপরিবহনে চাঁদাবাজী বন্ধ ও যানজট মুক্ত নগরী উপহার দিতে, ট্রাফিক পুলিশের বিশেষ অভিযান চলমান বরিশালে সড়কে যানজট নিরসনে কাজ করছেন ব্যাটারী চালিত ইজিবাইক শ্রমিক কল্যাণ সংগঠন!

বরিশালে বিএনপি নেত্রী শিরিনকে বিতর্কিত করতে মিডিয়াপাড়ায় ঘুরছে ওরা!

আসাদুজ্জামান:: কেন্দ্রীয় বিএনপির বরিশাল বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি বিলকিস জাহান শিরিনকে মিডিয়া কু করতে ৪৬ হাজার টাকার মিশন নিয়ে নেমেছে প্রতিহিংসার গলগ্রহে লিপ্ত একটি মহল। অভ্যন্তরীণ দ্বন্দ্বে এবং ত্রাণ কার্যক্রমে প্রশংসিত হওয়ায় স্থানীয় ও কেন্দ্রীয়ভাবে বিতর্কিত করার জন্য মিডিয়া কু কে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করার মিশনে নামার খবর পাওয়া গেছে। এজন্য ত্রাণ কার্যক্রমে পিছিয়ে থাকা বিএনপির একটি প্রভাবশালী মহলের অদৃশ্য ইশারায় এই মিশন বাস্তবায়নের চেষ্টা চলছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বরিশাল বিএম কলেজের সাবেক এক ছাত্রদল নেতা এবং বরিশাল ও ঝালকাঠীর সাবেক ২ ছাত্রদল নেতাকে এই মিশন বাস্তবায়নের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। বরিশালের স্থানীয় ৫ টি মিডিয়া ও জাতীয় একটি মিডিয়াকে ম্যানেজ করে সংবাদের মাধ্যমে মিশন বাস্তবায়ন করবে। জাতীয় পত্রিকার জন্য ২০ হাজার টাকা এবং স্থানীয় নিজ ঘরানার ৫ টি পত্রিকাকে বাছাই করে ২৫ হাজার টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এই কাজে রিকশা ভাড়া বাবদ আরও ১ হাজার টাকা ধরা হয়েছে।

এছাড়াও অনলাইন পত্রিকাগুলোর মাধ্যমে তা ছড়িয়ে দেয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকার সাংবাদিকদের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় বিএনপির নেতৃবৃন্দ’র বক্তব্য গ্রহণের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় বিতর্কিত করার চেষ্টা চালাচ্ছে। জানা গেছে, বরিশাল বিভাগীয় বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিলকিস জাহান শিরিন করোনা দুর্যোগে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশের পরে বরিশালে হতদরিদ্র মানুষ ও দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী ও রমজান উপলক্ষে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেন। যা স্থানীয় ও জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হয়। ত্রাণ বিতরনের ধারা অব্যাহত থাকায় গুটি কয়েকজন ইর্ষা প্রকাশ করলেও বরিশাল বিভাগীয় করোনা পর্যবেক্ষণ সেলের আহবায়ক করা হয় বিলকিস জাহান শিরিনকে। এতে বরিশাল বিএনপির অনেকের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করতে থাকে। ত্রাণ কার্যক্রমে পিছিয়ে থাকা বিএনপির কতিপয় নেতৃবৃন্দ বিষয়টিকে ভালোভাবে না নিয়ে ভিতরে ভিতরে চাপা ক্ষোভ নিয়ে বেশ কয়েকজনে ত্রাণ বিতরন করে ফটোশেসনে অংশ নেন। সামান্য সংখ্যক ব্যক্তিকে ত্রাণ দিয়ে সংখ্যা বাড়িয়ে প্রকাশ করায় বির্তকের সৃষ্টি হয়। এসব গোছাতে এবং বিএনপি নেতৃ বিলকিস জাহান শিরিনের কেন্দ্রীয় দৌরাত্ম্য কমাতে ও স্থানীয়ভাবে বিতর্কিত করতে কৌশল অবলম্বন করা হয়।

এই কৌশলের অংশ হিসেবে অপপ্রচার করতে শলা পরামর্শ করা হয়। এমনকি তারেক রহমানের নাম ভাঙিয়ে অর্থ আদায় করা হচ্ছে বলে প্রচারনা চালানো এবং ঢাকা থেকে বরিশালে না এসে শিরিন কিভাবে ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এসব পয়েন্ট উল্লেখ করে নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশ করিয়ে তা কেন্দ্রীয় দপ্তরে ও লন্ডনে তারেক রহমানের কান পর্যন্ত পৌঁছানোর অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। করোনা মহামারীর মধ্যে দলের নেতাকর্মীদেরকে সাহায্য সহযোগিতার বদলে প্রতিহিংসার রাজনীতি মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। যারা ত্রাণ দিয়ে দলের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করছে তাদেরকে কলকিংত করার চেষ্টায় লিপ্ত থাকা দলের জন্য আরও বিপর্যয় ডেকে আনতে পারে বলে অভিমত রাজনৈতিক বোদ্ধাদের।

মুজিববর্ষ