বরিশালে পলাশপুরে রাতের আধাঁরে গৃহবধূর বসতঘরে আগুন! এই বৃষ্টি দিন ! প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ সবাইকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক মোঃ শামীম বিশ্বাস বরিশাল জেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ নাজমূল হুদার আবেগঘন ঈদ শুভেচ্ছা বার্তা পিতার আদর্শ বুকে ধারণ করে এগিয়ে যাচ্ছেন আ-নেতা তৌহিদুল ইসলাম বাকেরগঞ্জে অসহায় মানুষের পাশে মোঃ শামীম বিশ্বাস বরিশালে সরকারি নির্দেশ অমান্য করায় ক্রেতা -বিক্রেতাকে জরিমানা পশ্চিম গগনে বাঁকা চাঁদ দেখলেই পবিত্র ঈদুল ফিতরের ঈদ অসহায় কর্মহীনদের পাশে দাড়িয়ে নজর কেড়েছে ছাত্রলীগ নেতা রাসেল

সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন, নিজ গৃহে থাকুন নিরাপদে থাকুন -ডিসি ট্রাফিক জাকির হোসেন

আল আমিন গাজী/জুবায়ের ইসলাম :: করোনা ভাইরাস থেকে জনসাধারণকে নিরাপদ রাখতে ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সাড়া দেশের ন্যায় বরিশালেও কাজ করছে জেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। এরই ধারাবাহিকতায় বরিশাল নগরীতে জনসচেতনতা মূলক প্রচারনা ও লিফলেট বিতরণ করেছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ (বিএমপি) ট্রাফিক পুলিশের সদস্যরা। ডিসি ট্রাফিক মোঃ জাকির হোসেন মজুমদারের উদ্যেগে জনসচেতনতা মূলক প্রচারণা কাজের শুভ সূচনা করেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ (বিএমপি) কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান বিপিএম- বার।

এসময় তিনি বলেন, বিএমপি পুলিশ সব সময় জনগনের পাশে আছে এবং আগামীতেও থাকবে।তিনি আরও বলেন ” নিজেদের নিরাপদ রেখে জনগণকে নিরাপদ রাখতে তাদের পাশে দাঁড়াতে হবে “এই স্লোগান মাথায় রেখে আপনারা সবাই জনকল্যাণে কাজ করবেন বলে আমি আশা করছি । এসময় তিনি ট্রাফিক সার্জেন্ট রানা মিয়ার জনকল্যাণ মূলক কাজের প্রশংসা করে বলেন, রানা সবসময় জনকল্যাণ মূলক কাজে নিজেকে নিয়োজিত রাখে। সবাই তার মতো জনকল্যাণে এগিয়ে আসবেন বলে আমার বিশ্বাস ।

পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্য তিনি বলেন সকলের নিরাপদ জীবন ও সুস্থতার জন্য সবসময় সতর্ক থাকুন। নিজে নিরাপদ থাকুন পরিবারকে নিরাপদ রাখুন। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন শেষে মটর সাইকেল যোগে বিএমপি সদর দপ্তর থেকে শুরু করে নগরীর কাকলীর মোড়,সদর রোড,জেলখানা মোড়,বটতলা বাজার, নতুন বাজার, নথুল্লাবাদ, চৌমাথাসহ বিভিন্ন স্থানে জনসচেতনতা মূলক প্রচারনা করে বিএমপি ট্রাফিক বিভাগ।

ডিসি ট্রাফিক মোঃ জাকির হোসেন মজুমদার নেতৃত্বে এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, এডিসি মোঃ জাকারিয়া, এসি মোঃ মাসুদ রানা, এসি মোঃ ফায়েজুর রহমান,টিআই মোঃ আঃ রহীম, টিআই মোঃ রিবউল, সার্জেন্ট রানা মিয়া, , সার্জেন্ট শহিদুল ইসলাম, সার্জেন্ট ইজাজ আহম্মেদ, সার্জেন্ট সাদ্দাম হোসেন,সার্জেন্ট মোঃ ইমন, সার্জেন্ট মোঃহাসান, সার্জেন্ট সরোয়ার আলম,টিএসআই আসলাম মিয়া,টিএসআই জাকির হোসেন, টিএসআই ফোরকান, এটিএসআই মতিউরসহ ট্রাফিক বিভাগের অন্যান্য পুলিশ সদস্যরা।

প্রচারনা শেষে ডিসি ট্রাফিক মোঃ জাকির হোসেন মজুমদার সাংবাদিকদের বলেন, আমারা জনসচেতনতা সৃষ্টির জন্য লিফলেট বিতরণ করেছি, হন্ডমাইক দিয়ে মানুষকে নিরাপদে থাকতে অনুরোধ করেছি জরুরি কাজ ছাড়া কেউ বের হবেন না । বিভিন্ন স্থানে সচেতনতা মূলক স্টিকার লাগিয়েছি মানুষ প্রয়োজন ছাড়া যেন রাস্তায় বের না হয় । পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সবাই যেন নিরাপদে গৃহে থাকে।

জনগণের নিরাপত্তা দিতে আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি । কি ধরনের প্রচার করেছেন এমন প্রশ্নের জবাবে ডিসি ট্রাফিক আরও বলেন, মানুষের কাছে আমরা একটাই বার্তা দিচ্চি আপনারা নিজ গৃহে থাকুন নিরাপদে থাকুন। সাবান দিয়ে ঘনঘন হাত ধুয়ে নিন,সব সময় পরিস্কার পরিছন্ন থাকুন নিজে বাঁচুন পরিবার বাঁচান।

সবাই আমাদের কথা অনুসরণ করে ঘরে থাকবে এবং করোনা ভাইরাস থেকে সবাইকে নিরাপদ রাখবে বলে আশা প্রকাশ করছি।

এদিকে ট্রাফিক পুলিশে এমন কাজের প্রশংসা করেছেন বরিশালের সচেতন মহল। বিএমপি পুলিশকে ধন্যবাদ দিয়ে তারা বলেন, বিএমপি পুলিশ সব সময় বরিশাল বাসীর পাশে ছিল আগামীতেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে বলে প্রত্যাশা নগরবাসীর।

মুজিববর্ষ