1. gazia229@gmail.com : admin :
আশ্রয়ণ কেন্দ্রের এক তরুণীকে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে গণধর্ষণ - BarishalNews24
শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০৩:০০ অপরাহ্ন

আশ্রয়ণ কেন্দ্রের এক তরুণীকে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে গণধর্ষণ

প্রতিবেদক:
  • প্রকাশকাল: শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ৯৫ বার দেখা হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক:: ফরিদপুরের মধুখালী পৌর এলাকার আশ্রয়ণ কেন্দ্রের এক তরুণীকে মোবাইল ফোন চুরির অপবাদ দিয়ে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে কয়েক দফা ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার দুই দিন পর অসুস্থ অবস্থায় ওই তরুণীকে বাড়ির সামনে ফেলে রেখে যায় ধর্ষকরা। গত মঙ্গলবার দুপুরে তাকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেলে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মধুখালী থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ ঘটনায় জড়িত তিনজনকে আটক করে গতকাল জেলহাজতে পাঠিয়েছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক আবদুর রহমান ফিরোজ জানান, ফরেনসিক বিভাগে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। এরপর ওসিসিতে পাঠানো হতে পারে। পরীক্ষার রিপোর্ট হাতে পেলেই বিস্তারিত জানানো যাবে। মধুখালী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রথীন্দ্রনাথ তরফদার বলেন, ‘ঘটনায় জড়িত সন্দেহে রোজিনা ও তার মা পারুল আক্তার এবং জাকিরুল নামে এক শ্রমিককে আটক করা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।’ ভুক্তভোগী ওই তরুণী বলেন, ‘রোজিনা ও তার মা পারুল মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে আমার সব শেষ করে দিয়েছে।’ এদিকে যশোর সদর উপজেলার চাঁচড়া ইউনিয়নে শতবর্ষী এক নারীকে ধর্ষণ ও মারপিট করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত বুধবার বেলা তিনটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিলে সেখানে তার অস্ত্রপচার করা হয়।

 

ওই ব”দ্ধার পুত্রবধূ বলেন, ‘দুপুরে আমার শাশুড়ি ঘরে শুয়ে ছিলেন। এ সময় আমার ভাসুরের ছেলে ঘরের ভেতরে ঢুকে ব”দ্ধার বুকের ওপর রুবায়েতকে (২০) দেখে। বিষয়টি জানতে পেরে আমরা রুবায়েতকে আটক করি। আমার শাশুড়ির মাথা ও যৌনাঙ্গ দিয়ে প্রচুর রক্তক্ষরণ হ”িছল। তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে ¯’ানীয় ইউপি সদস্য মনজুর ও রুবায়েতের চাচা এসে রুবায়েতকে ছাড়িয়ে নিয়ে যায়’।
যশোর জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) আরিফ আহম্মেদ বলেন, বুধবার বিকেল ৪টার দিকে ফিজিক্যাল অ্যাসাল্ট হিসেবে শত বছর বয়সী এক নারীকে ভর্তি করা হয়। প্রথমে তাকে মহিলা সার্জারি ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। পরে ওই নারী ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে জানানো হলে ব”হস্পতিবার দুপুরে তাকে গাইনি ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। তার অস্ত্রপচারের প্রয়োজন হয়েছে। ব”দ্ধাকে ধর্ষণ করা হয়েছে কি না তা পরীক্ষার জন্য আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষার রিপোর্ট পেলেই এ ব্যাপারে বিস্তারিত বলা যাবে।

অভিযুক্ত রুবায়েত চাঁচড়ার ইউনিয়নের রুদ্রপুর গ্রামের আব্দুল ওহাবের ছেলে। যশোর কোতয়ালী থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শেখ তাসমিম আহমেদ জানান, অভিযুক্ত রুবায়েতকে আটক করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© 2021 - All rights Reserved - BarishalNews24
Design and Developed by Sarjan Faraby