1. gazia229@gmail.com : admin :
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সাংবাদিক আল-আমিন গাজীর জামিন - BarishalNews24
সোমবার, ৩০ জানুয়ারী ২০২৩, ০১:৩০ পূর্বাহ্ন

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় সাংবাদিক আল-আমিন গাজীর জামিন

প্রতিবেদক:
  • প্রকাশকাল: মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট, ২০২২
  • ১৬০ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক :::: ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় তরুণ সাংবাদিক আল-আমিন গাজীর জামিন আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৬আগস্ট) দুপুরে সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিজ্ঞ বিচারক মোঃ গোলাম ফারুকের আদালতে সিনিয়র আইনজীবী ক্যাইয়ুম খান রিপন ও এসএম ইশতিয়াক কবির রকি মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

এরআগে চলতি বছরে বরিশাল সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের পিবিআইকে তদন্ত প্রতিবেদন দেয়ার নির্দেশ দেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গতমাসে অভিযোগের বিষয়ে প্রাথমিকভাবে ২টি ধারায় প্রতিবেদন দাখিল করেন ট্রাইব্যুনালে।

সাংবাদিক আল আমিন গাজী জানান, আজ বিজ্ঞ আদালত সমনে হাজির হওয়ার নোটিশ দিয়েছিলেন। পরে
বিজ্ঞ সিনিয়র আইনজীবী ক্যাইয়ুম খান রিপন ও বরিশাল নিউজ২৪ এর প্রধান আইন উপদেষ্টা এ্যাড. ইশতিয়াক কবির রকির মাধ্যমে আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন। তিনি আরো বলেন আমার দুইজন আইনজীবী প্রতি ভরসা ছিলো। আলহামদুলিল্লাহ শুকরিয়া আল্লাহর কাছে সত্যের জয় হয়েছে।

উল্লেখ, মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার হিসাবে একটি ঘর পায় রাজ্জাক স্মৃতি কলোনীর বাসিন্দা আল আমিন গাজী। ঘর পাওয়ার বিষয়টি জানতে পেরে সাংবাদিক পরিচয়দানকারী মুরাদসহ তার সহযোগীরা বিভিন্ন ভাবে আল আমিন গাজীর বিরুদ্ধে অপ-প্রচার চালায়। পরবর্তীতে আর্থিকভাবে অসচ্ছল আল আমিন গাজী নামের প্রধানমন্ত্রী তহবিলের ঘর পেলে তা নিয়ে নেতিবাচক সংবাদ তৈরির ভয়ভীতি দেখিয়ে তার মায়ের কাছ থেকে এক দফা অর্থ আদায় করেন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহারের একটি ঘর বরাদ্দ পেয়েছেন। অভিযুক্তরা বিষয়টি জানতে পেরে তার মায়ের কাছে ৪০ হাজার টাকা দাবি করে। এবং এই টাকা না দিলে বরাদ্দের ঘর বাতিলের লক্ষে নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশের ভয়ভীতি দেখাতে থাকে। এতে সুরমা বেগম ভয় পেয়ে ১২ হাজার টাকা দিলেও অভিযুক্তরা পরবর্তীতে আরও টাকা দাবি করে। পরে দ্বিতীয়বারের চাঁদা চেয়ে না পেয়ে অভিযুক্তরা একত্রিত হয়ে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ করে।

পরবর্তীতে এঘটনায় সাংবাদিক আল আমিন গাজী বিজ্ঞ আদালতে ২টি মামলা করেন। যা বর্তমানে তদন্তধীন রয়েছে।

২ এপ্রিল সন্ধ্যার দিকে এই সংবাদ বাদী অনলাইনে থাকা অবস্থায় ফেসবুকে দেখতে পান। রিপন হাওলাদারের বিডি ক্রাইম২৪.কম নামক অনলাইনে ‘বরিশালে প্রতারণা করে আশ্রয়হীনের ঘর বাগিয়ে নিলেন বাড়ি-গাড়ির মালিক’ শিরোনামে আল আমিনের ছবি সংবলিত খবর প্রচার করে। একই ভাবে অপপ্রচার চালায় মুরাদ হোসেন।

পরে এঘটনায় মুরাদ আল আমিন গাজীর বোনের কাছে চাঁদা দাবি ও হত্যার হুমকি দেয়। পরে কোতোয়ালি মডেল থানায় নিরাপত্তা চেয়ে আল আমিন গাজীর বোন সাধারন ডায়েরি করেন। সেই জিডি সূত্রে আল আমিন গাজী সংবাদ প্রকাশ করেন। এ ঘটনায় মুরাদ চলতি বছরে আল আমিন গাজীকে বিবাদী করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন। পরে পিবিআই মামলায় তদন্ত রির্পোট আদালতে প্রেরন করলে। আদালতের বিচারক ১৬ আগষ্ট সমনে দিন ধার্য করা ছিল। একই দিনে বাদির উপস্থিতিতেই জামিন মঞ্জুর করে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© 2021 - All rights Reserved - BarishalNews24
Bengali Bengali English English