1. gazia229@gmail.com : admin :
বরিশালে তিন মানবিক ট্রাফিক পুলিশ, - BarishalNews24
বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০২:৪৭ অপরাহ্ন

বরিশালে তিন মানবিক ট্রাফিক পুলিশ,

প্রতিবেদক:
  • প্রকাশকাল: বুধবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ১৩৯ বার দেখা হয়েছে

বরিশাল নিউজ24 ডেস্ক:: সারা দেশে চলছে লকডাউন। বাসসহ সব গণপরিবহন বন্ধ। নানা প্রয়োজনে মানুষকে বাইরে বের হতে হচ্ছে। তবে বরিশালে সীমিত পরিসরে রিক্সা চলাচল করতে দেখা গেছে বিভিন্ন সড়কে । মহামারী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় ।

আজ বুধবার লকডাউনে কঠাের অবস্থানে রয়েছেন বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ । তাই অন্যদিনের তুলনায় আজ সকাল থেকেই বরিশালে ফাঁকা হতে শুরু করে সড়ক। রাস্তায় ব্যক্তিগত গাড়িসহ অন্যান্য পরিবহন ছিলো তুলনামূলক কম। তা ছাড়া লকডাউনে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাধারন মানুষের সেবা নিশ্চিত করতে মাঠে রয়েছেন ট্রাফিক বিভাগের সদস্যরা। সাধারণ মানুষের পাশে থেকে নিরালশ ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন ট্রাফিক বিভাগের মানবিক পুলিশ সদস্যরা।

জানাযায়, দুপুর সাড়ে ১২টার সময় নগরীর হাতেম আলী কলেজ চৌমাথায় ট্রাফিক পুলিশ বক্সের পাশে মসজিদের দেয়ালের সাথে দাড়িয়ে শরীরে রক্ত মাখা জামা ও মাথায় ‌ব্যান্ডেজ কাপড় বাধা এক জন অসুস্থ ব্যক্তি কান্না করছে । কান্নার শব্দ শুনে ছুটে যায় বরিশাল মেট্রোপলিটন ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট রানা, ট্রাফিক সদস্য পিন্টু ও জামাল। এক পর্য়ায় অসুস্থ ব্যক্তির সাথে তারা কথা বলেন।

জানাযায়, আহত ওই ব্যক্তি নাম মোঃ নেছার আকন। তিনি বরগুনা জেলার কড়াইবাড়ী গ্রামের ইউসুফ আকন এর ছেলে। পরে নেছার আকনের কথা শুনে সার্জেন্ট রানা, পিন্টু ও জামাল প্রায় ১ঘন্টা চেষ্টা করে একটি মালবাহী ট্রাকে তাকে উঠিয়ে দেয় এবং কিছু অর্থ দিয়ে সাহায্য করেন। পরে অসুস্থ নেছারের কাছ থেকে ভাড়া না রাখার জন্য ট্রাক চালককে অনুরোধ করেন ।

 

অসুস্থ নেছার আকন বরিশাল নিউজ24 কে বলেন, অনেক কষ্ট করে বরিশালে এসেছি । মাথায় ৩টা সেলাই রয়েছে। ওষুধ  খেতে পারি নাই টাকার জন্য। এখন যে বাড়ি যাবো সাথে কোন টাকা নাই ও লকডাউনের জন্য কোন গাড়ি ও নাই । আমি গতকাল রাতে কেরানীগঞ্জ থেকে বরিশাল আসার পথে রাত আনুমানিক ২ টার সময় কুইচ্ছামারা বীজের পাশে ছিনতাইকারীরা আমার উপর হামলা করে টাকা ,মোবাইল ফোনসহ যাবতীয় মালামাল নিয়ে গেছে। আমার মাথায় রড দিয়ে আঘাত করে মাথায় মারাত্মক জখম করেছে। এখন বাড়ির কারো নাম্বার নেই আমার কাছে। অসুস্থ শরীর নিয়ে কোথায় যাবো। পকেটেও টাকা নাই। এই পুলিশ স্যার আমারে বাড়ি পৌছে দেয়ার জন্য সাহায্য করছে।

এ বিষয় বরিশাল মেট্রোপলিটন ট্রাফিক পুলিশের সার্জেন্ট  রানা বরিশাল নিউজ24কে বলেন, লোকটি অসহায়। রাস্তায় তেমন গাড়িও নেই । লকডাউনে অসুস্থ লোকটি কিভাবে বরগুনা যাবে। তাই তাকে সাহায্য করলাম। কারণ পুলিশ জনগনের বন্ধু। জনগনের নিরাপত্তা দেয়াই হচ্ছে পুলিশের কাজ। সব সময় চেষ্টা করি মানুষের পাশে দাঁড়াতে।

অপরদিকে অসুস্থ নেছার ট্রাফিক পুলিশকে ধন্যবাদ দিয়ে বললেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে এমনই হোক আমাদের পুলিশ, পুলিশ হোক সাধারণ মানুষের ভরসার জায়গা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© 2021 - All rights Reserved - BarishalNews24
Design and Developed by Sarjan Faraby