1. gazia229@gmail.com : admin :
বরিশালে কাশিপুরে মুন্না ও রিপনের অটোরিক্সা থেকে চাদাঁবাজি! এবার ডা.মনিষার আন্দোলন - BarishalNews24
শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ০১:৩০ পূর্বাহ্ন

বরিশালে কাশিপুরে মুন্না ও রিপনের অটোরিক্সা থেকে চাদাঁবাজি! এবার ডা.মনিষার আন্দোলন

প্রতিবেদক:
  • প্রকাশকাল: মঙ্গলবার, ৩০ মার্চ, ২০২১
  • ১৭৭ বার দেখা হয়েছে

বরিশাল নিউজ 24 ডেস্ক || নগরীর কাশিপুরের চিন্হিত চাঁদাবাজ ও অটো বিট বাণিজ্যের চাঁদা সংগ্রহকারী রিপনের বিরুদ্ধে এবার প্রকাশ্যে আন্দোলন করলেন বাম নেত্রী ডা.মনিষা চক্রবর্তী ও তার অনুসারীরা। কাশিপুরের একাধিক স্থানীয় বাসিন্দা ও অটো চালক জানান,২৮,২৯ নং ওয়ার্ডে ব্যাটারিচালিত অটো রিকশার থেকে অবৈধভাবে চাঁদা তুলে আসছিল বেশ কয়েক বছর ধরে স্থানীয় বাজার কমিটির পদধারী ‘রিপন মাঝি’ ও আরও তিনজন নেতা। এ বিষয়ে বেশ কয়েকবার সংবাদপত্রে খবর এলেও রহস্যজনকভাবে কতৃপক্ষের নজর কাড়তে পারেনি সেটি।

গতকাল এ অটো চলাচলে বিটের টাকা না দিয়ে চলাচল বন্ধ করে দেয় রিপন ও তার দলবল। বিষয়টি জানতে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন ডা.মনিষা চক্রবর্তী। এসময় ২৯ নং ওয়ার্ডের সভাপতি জসিম মাস্টার এর সাথে এ বিষয়ে কথা বার্তার এক পর্যায়ে বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়েন বরিশালের শ্রমিক নেতা বাম রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ডা. মনিষা চক্রবর্তী ও তার অনুসারীরা ।

এরপর দফায় দফার পুলিশ এসে তখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এদিকে, গতকাল সকাল ১১ টার দিকে ডা. মনিষা চক্রবর্তীর দেয়া পূর্ব নির্ধারিত সময় অনুযায়ী প্রায় শত রিক্সা ও হলুদ অটোরিকশার ড্রাইভারদের সমাগম ঘটে কাশিপুর বাজার যাত্রী ছাউনির কাছে। এসময় ২৯ নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতিসহ বেশ কয়েকজন নেতা কর্মীদের উপস্থিতিতে ফের উত্তেজনার সৃষ্টি হয় এবং মনিষার অনুসারীরা ‘চাঁদাবাজ’ রিপনের বিরুদ্ধে শ্লোগান দিয়ে মিছিল করে। মিছিলে অংশগ্রহণ করে স্থানীয় রিক্সা শ্রমিক নেতা সিদ্দিক, রসুল ও জাহাঙ্গীর দিদার সহ প্রায় শত লোকজন। ঘটনাস্থলে উত্তেজনার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও সমঝোতায় আসতে দ্বায়িত্ব প্রাপ্ত পুলিশ অফিসারদের সামনেই মিছিল ও শ্লোগান দিয়ে ফেইসবুক লাইভে চাঁদাবাজ রিপনসহ দোষীদের বিচার চায় ডা.মনিষা ও তার অনুসারীরা।

এসময় এক বক্তব্যে ডা.মনিষা চক্রবর্তী বলেন ‘ গতকাল কাশিপুর বাজারের বিট বন্ধ করে দিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পুলিশকে জানালে আমাদের উপর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নেতা ও সভাপতি মো. জসিম লাঠি নিয়ে মারতে ওঠেন এবং চড়াও হন।এসময় আমরা ভিডিও ধারণ করে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেই এবং অবস্থান নিয়ে এখানেই বিচার চাই। গতকাল মুসলমান ভাইবোনদের ধর্মীয় গুরুত্বপূর্ণ একটি রাত হওয়ায় আমরা পরবর্তী কর্মসূচি আজ সকালে দিয়েছি। আমরা অটো বিট ও চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে।

আমরা চাঁদাবাজ রিপনসহ তার মূল হোতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা চাই এবং আমাদের মারতে ওঠা আওয়ামী লীগের নেতারও বিচার চাই ‘ এরপর পুলিশের উপস্থিতিতে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো.জসিম উদ্দিন শব-ই-বরাতের রাতের ঘটনার বিবরণ দিয়ে বলেন ‘ আমি জীবনে কোনদিন এক পয়সা চাঁদা কেমন তা চোখে দেখিনি। অথচ, আমার বিরুদ্ধে ডা.মনিষা চাঁদাবাজির অভিযোগে শ্লোগান দিচ্ছে। এতে ২৯ নম্বর ওয়ার্ডের নেতা কর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে সমবেত হয়েছে। আমি চাঁদাবাজি প্রশ্রয় দেইনা, বরং প্রতিবাদ করি। আমি কোন গাড়ি চলাচলে বাধা দেইনা।

‘ স্থানীয়দের ভাষ্যমতে, চাঁদাবাজ রিপন স্থানীয় বাজার কমিটির নাম বিক্রি করে প্রতিমাসে একেকটি অটো রিক্সা থেকে ৮০০-১২০০ টাকা নিত। এভাবে প্রায় ষাটটি অটোর টাকা সে আরও তিনজন নেতাকে নিয়ে ভাগ করে আত্মসাৎ করতো। বাজার কমিটির নেতা যুক্ত থাকায় তাকে কেউ কিছু বলতে সাহস পেত না।বিষয়টি বহুবার স্থানীয় পত্রিকায়ও এসেছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© 2021 - All rights Reserved - BarishalNews24
Design and Developed by Sarjan Faraby