1. gazia229@gmail.com : admin :
বরিশালে পত্রিকার স্টিকার ব্যবহার করে মাদক ব্যবসা! গাড়ি থেকে মদ উদ্ধার: ফেন্সিডিলসহ আটক ৩ - BarishalNews24
বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৫:০০ পূর্বাহ্ন

বরিশালে পত্রিকার স্টিকার ব্যবহার করে মাদক ব্যবসা! গাড়ি থেকে মদ উদ্ধার: ফেন্সিডিলসহ আটক ৩

প্রতিবেদক:
  • প্রকাশকাল: বুধবার, ১০ মার্চ, ২০২১
  • ৩৭০ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক :: বরিশালে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে নগরীর উত্তর জনপদের চিহ্নিত ফেন্সিডিল ব্যবসায়ী বাবুল। এসময় আটক হয়েছে তাঁর আরও তিন সহযোগী।

পাশাপাশি তাদের কাছ থেকে ফেন্সিডিল, মদ ও বিয়ার (আন্টার) সহ স্থানীয় দুটি পত্রিকার স্টিকার লাগানো একটি প্রাইভেট কার ও দুটি মোটরসাইকেল জব্দ করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।

মঙ্গলবার বিকাল থেকে বুধবার সকাল পর্যন্ত বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার পরিদর্শক মো. মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে ডিবির পৃথক দুটি টিম নগরীর কাশীপুর বাজার ও গড়িয়ারপাড় এলাকায় এই অভিযান চালায়।

এর মধ্যে একটি অভিযানে অংশ নেয়া বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা শাখার উপ-পরিদর্শক ও মামলার বাদী (এসআই) সাইদুল ইসলাম জানিয়েছেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার বিকালে কাশীপুর বাজার সংলগ্ন তোতা মিয়ার মালিকানাধীন একটি ভবনে অভিযান চালায় ডিবি পুলিশ।

এসময় সেখান থেকে ২৩ বোতল ফেন্সিডিল, ২০ ক্যান বিয়ার (আন্টান) এবং ৭৫০ মিলির এক বোতল বিদেশী মদ, ভবনের ভেতরে বিভিন্ন কক্ষ থেকে বিপুল সংখ্যক ফেন্সিডিলের খালি বোতল, পুড়িয়ে ফেলা বোতল, মাদক সেবনের সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। পাশাপাশি একটি প্রাইভেট কার, ২টি মোটরসাইকেলসহ তিনজনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা হলো- নগরীর উত্তর জনপদের চিহ্নিত ফেন্সিডিল কারবারি কাউনিয়ার বাসিন্দা আজিজ আহমেদ বাবুল, তার সহযোগী সজল ও মুন্না।

ডিবির ওই কর্মকর্তা জানান, আটককৃতদের কাছ থেকে একটি প্রাইভেট কার এবং দুটি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়। প্রাইভেট কারটি ভবনের গ্যারেজে রাখা ছিল। সেটার মধ্যে থেকে মদ ও বিয়ার উদ্ধার করা হয়। আর প্রাইভেট কার ও মোটরসাইকেলের সামনে স্থানীয় দুটি পত্রিকার স্টিকার লাগানো ছিল। অভিযান পরিচালনায় কাজী তোতার বড় ছেলে গোলাম কিবরিয়া মুন্না কে ১৫ (পনের) বোতল ফেনসিডিল এবং অপর সন্তান সজল কে ০৪ বোতল ফেনসিডিল সহ গ্রেফতার করেন।

মুন্না দেয়া তথ্য মতে মাদক ব্যবসায়ী অাজিজুল ইসলাম মোল্লা ওরফে বাবুল তালুকদারকে ০৩ বোতল ফেনসিডিল সহ গ্রেফতার করেন ।

এ ঘটনায় পলাতক ব্যক্তি ও আটককৃত তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আসামি করে এয়ারপোর্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করা হয়েছে। মামলায় গ্রেফদার দেখিয়ে আটক তিনজনকে বুধবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

অপরদিকে অভিযানের নেতৃত্ব দেয়া ডিবি পুলিশের পরিদর্শক মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ‘মঙ্গলবার আটককৃতদের কাছ প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার সকাল ১০টায় গড়িয়ারপাড় এলাকায় আরও একটি অভিযান চালানো হয়।

এসময় সেখান থেকে মাদক ব্যবসায়ী সাইদুল ইসলাম নামের আরেকজনকে আটক করা হয়। এসময় তার সাথে থাকা বাজারের ব্যাগে ২১ বোতল ফেন্সিডিল পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় এয়ারপোর্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া মঙ্গলবার রাতের অভিযানের ঘটনায় আটক তিনজনসহ মোট চারজনকে অভিযুক্ত করে মামলা হয়েছে। মামলার পলাতক আসামি প্রাইভেট কারের মালিক কাশীপুরের কাজী মোজাম্মেল হক মঞ্জুকে চার নম্বর আসামি করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© 2021 - All rights Reserved - BarishalNews24
Design and Developed by Sarjan Faraby