1. gazia229@gmail.com : admin :
ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী" সন্দেহে বহিরাগত আটক ১৪ - BarishalNews24
শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১১:২৩ পূর্বাহ্ন

ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী” সন্দেহে বহিরাগত আটক ১৪

প্রতিবেদক:
  • প্রকাশকাল: শনিবার, ২৭ মার্চ, ২০২১
  • ৪৩ বার দেখা হয়েছে

কাশেম হাওলাদার,বরগুনা সংবাদদাতা:

বরগুনার বেতাগী উপজেলার সরিষামুড়ি ইউনিয়ন থেকে ১৪ ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার বিকেলে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়। আটক ব্যক্তিরা ওই এলাকার বাসিন্দা নন বলে নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

ওই এলাকায় থাকা নির্ভরযোগ্য সূত্র জানিয়েছে, শনিবার বিকাল ৩টার দিকে নৌকার সমর্থকরা সরিষামুড়ির বিভিন্ন বাড়ি থেকে প্রায় ২০জন ব্যক্তিকে মারধর করে আটকে রাখে। খবর পেয়ে বেতাগী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নৌকা সমর্থকদের কাছ থেকে ১৭ ব্যক্তিকে থানা হেফাজতে নিয়ে যায়। পরে পরিচয় ও ঠিকানা নিশ্চিত হওয়ার পর এলাকার বাসিন্দা পাঁচজনকে ছেড়ে দেয়। বাকি ১২ ব্যক্তি বরিশাল ও ঝালকাঠির বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা হওয়া তাদের আটক করে।

সরিষামুড়ি ইউনিয়নের নৌকার মনোনীত প্রার্থী ইমাম হোসেন শিপন জানান, নির্বাচনে আমার লোকজনের উপর হামলার উদ্দেশ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইউসুফ শরীফ বরিশাল ও ঝালকাঠি এলাকা থেকে প্রায় অর্ধশতাধিক বহিরাগত সন্ত্রাসী ভাড়া করে এলাকায় এনেছে। খবর পেয়ে নৌকার সমর্থকরা ১৭জন বহিরাগতকে খুঁজে বের করে পুলিশে সোপর্দ করে। তিনি বলেন, ইউসুফ নিজেই কুখ্যাত ডাকাত। গোটা দক্ষিনাঞ্চলে তার ডাকাতের নেটওয়ার্ক বিস্তৃত। ইউসুফ ও তার ছেলেদের বিরুদ্ধে হত্যা, লুট ডাকাতি, নারী নির্যাতনসহ বিভিন্ন অপরাধের অভিযোগে ১৫টির বেশী মামলা রয়েছে। চারমাস আগে ইউসুফ বাহীনি আমায় নির্মমভাবে কুপিয়ে দুই বা প্রায় বিচ্ছিন্ন করে দেয়। আমি এখন পঙ্গু অবস্থায় নির্বাচনে অংশ নিয়েছি। আমার দায়ের করা মামলায় দির্ঘদিন এলাকার বাইরে থাকার পর জামিন নিয়ে ১২ মার্চ এলাকায় আসে। ওইদিন সে আমার লোকজনের উপর হামলা চালায়। এরপর সবশেষ ২৩ মার্চ আমার কর্মী রফিক বিস্বাশকে নির্মমভাবে কুপিয়ে যখম করে। রফিক এখন ঢাকায় চিকিৎসাধীন। এলাকার লোকজন যখন এই ডাকাতদলকে প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছে তখনি সে এলাকার বাইরে থেকে ডাকাতদের ভাড়া করে এনেছে।

 

তবে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইউসিুফ শরীফ দাবি করেন, মিলাদ থাকার কারনে বরিশাল থেকে তার কিছু স্বজনরা আসেন। আ’লীগের প্রার্থী বাধার কারনে তারা এলাকার অন্য আতীত স্বজনদের বাসায় অবস্থান নিয়েছিল। এ খবর জেনে আ.লীগ প্রার্থীর সমর্থকরা তাদের উপর হামলা করেন। এতে আমার অন্তত ১০জন সমর্থক আহত হয়েছেন।
বেতাগী থানার ওসি কাজী সাখাওয়াত হোসেন তপু নিশ্চিত করেছেন, যাদেরকে থানায় আটক রাখা হয়েছে তারা সব বহিরাগত। তবে তাদের পরিচয় সংক্রান্ত কোনো তথ্য জানাতে রাজি হননি তিনি। ওসি তপু জানান, আটক ব্যক্তিদের পরিচয় ও তথ্য নিশ্চিত হওয়ার পর পুলিশ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবে।

 

২০২০ সালের ২০ নভেম্বর বিকেল সাড়ে ৩টার সরিষামুড়ি ইউনিয়নের কালিকাবাড়িতেই হামলার শিকার হন বর্তমান চেয়ারম্যান ,জেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইমাম হাসান শিপন জোমাদ্দার। তাকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন একই এলাকার সাবেক চেয়ারম্যান মো. ইউসুফ শরিফ তার দুই ছেলেসহ সমর্থকরা।

 

এ ঘটনায় ইউসুফ ও তার দুই ছেলেসহ ১৪ জনকে আসামী করে বেতাগী থানায় মামলা দায়ের হয়। ওইদিনের পর থেকে ইউসুফ ও তার পরিবার লাপাত্তা ছিলেন। ১০ মার্চ বুধবার হাইকোর্ট থেকে মামলায় জামিন পেয়ে ১২ মার্চ তিনি এলাকায় আসেন। ওইদিনও ইউসুফ ও শিপন সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় পাঁচজন আহত হন।

হামলার শিকার শিপন তিন মাসেরও বেশি ঢাকা জাতীয় অর্থপেডিক্স হাসপাতাল ও পুনর্বাসন প্রতিষ্ঠানে (পঙ্গু হাসপাতাল) চিকিতসাধীন ছিলেন। কিছুটা সুস্থ হয়ে গত ২৩ ফেব্রুয়ারী তিনি নিজ ইউনিয়ন বরগুনার বেতাগী উপজেলার সরিষামুড়ি আসেন এবং দলীয় মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচনী প্রকৃয়ায় অংশ নেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© 2021 - All rights Reserved - BarishalNews24
Design and Developed by Sarjan Faraby