1. gazia229@gmail.com : admin :
সাহেবেরহাটে সরকারি জমি দখল করে ভবন নির্মাণ, ব্যবসায়ী খুনের হুমকি: প্রতিকার চেয়ে প্রশাসনের কাছে আবেদন - BarishalNews24
রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০১:২৪ পূর্বাহ্ন

সাহেবেরহাটে সরকারি জমি দখল করে ভবন নির্মাণ, ব্যবসায়ী খুনের হুমকি: প্রতিকার চেয়ে প্রশাসনের কাছে আবেদন

প্রতিবেদক:
  • প্রকাশকাল: মঙ্গলবার, ২৫ মে, ২০২১
  • ১৬৭ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক >> বরিশালের সদর উপজেলার চাঁদপুরায় সরকারি বরাদ্দপ্রাপ্ত ব্যবসায়ীর জমিতে ভবন নির্মাণ করছে রিপন হাওলাদার নামের এক ব্যক্তি। অনেকটা গায়ের জোরে কয়েকদিন ধরে স্থানীয় সাবেরহাট বাজারের পেছনাংশে কুন্দিয়ালপাড়া নামক স্থানে কয়েকদিন ধরে গোপনে ভবনটি নির্মাণ করতে থাকে। এনিয়ে জমি মালিক ব্যবসায়ী আকতারুজ্জামান ও দখলদার রিপন হাওলাদারের সাথে উত্তেজনায় বিষয়টি প্রকাশ পেলে বিষয়টি স্থানীয় জেলা প্রশাসন পর্যন্ত গড়িয়েছে। রিপন হাওলাদারের বিরুদ্ধে প্রাণনাশের হুমকি অভিযোগ এনেছেন এবং বিপরিতে প্রতিকার চেয়ে জেলা, ভূমি ও উপজেলা প্রশাসনের কাছে প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেছেন। মঙ্গলবার দুপুরে সাহেবেরহাটের এই ব্যবসায়ী অভিযোগ করেছেন বলে শোনা গেছে। এবং অভিযোগের একটি কপি বরিশালটাইমস কর্তৃপক্ষের হাতে এসেছে।

জানা যায়, এর পূর্বে ওই সরকারি জমিতে পাকা স্থাপনা নির্মাণের বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসলে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) রাজিব আহম্মেদের নির্দেশে সোমবার সরেজমিন পরিদর্শন করেন ভূমি কর্মকর্তা নিশাত তামান্না। এসময় তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে ভবন নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেন। এবং জমি যাদের নামে প্রশাসনের পক্ষ থেকে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে, তাদের কাগজপত্রসহ ভূমি কর্মকর্তা তলব করেন।

অভিযোগকারী আকতারুজ্জামানকেও ভূমি কর্মকর্তা মঙ্গলবার সকালে কার্যালয়ে ডাকেন এবং কাগজপত্র দেখে রিপনের দখলে থাকা তার জমি বুঝিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন।

আকতারুজ্জামান জানান, দখলদার রিপনের বাবা হারুন হাওলাদার, খালু হিমু মীর এবং তিনিসহ ৮জনের নামে চান্দিনাভিটা বরাদ্দের আবেদন করেন। ২০১৬ সালে জেলা প্রশাসন জমিটি প্লট আকারে তাদের নামে বরাদ্দ দিলেও নেপথ্যে থেকে সার্বিক সহায়তা দেয় রিপন হাওলাদার। বিনিময়ে খরচের অজুহাতে রিপন ব্যবসায়ী আকতারুজ্জামানের কাছ থেকে এক লাখ টাকা নেয়।

ব্যবসায়ীর অভিযোগ, টাকা নেওয়ার পরে দীর্ঘ ৫ বছরে রিপন জমি বুঝিয়ে না দিয়ে উল্টো সেখানে ঘর তুলে বসবাস শুরু করাসহ আরও কয়েকজনের জমি বিভিন্ন লোকের কাছে বিক্রি করে। এরপর তার কাছে জমি দাবি করলে বুঝিয়ে দেই, দিচ্ছি করে সময়ক্ষেপন করতে থাকে। সর্বশেষ কাউকে কিছু অবহিত না করেই রিপন ওই জমিতে পাকা ভবন উত্তোলনের কাছ শুরু করলে ব্যবসায়ী গিয়ে বাধা প্রদান করলে খুনের হুমকি দেয়।

আকতারুজ্জামান জানান, রিপন তার বাবা ও খালুর নামে বরাদ্দ জমি ইতিপূর্বে বিক্রি করে দিলেও তার (ব্যবসায়ী) জমিটি (প্লট নং-১১৮) দখলে রেখে ভবন নির্মাণের বিষয়টির উপজেলা প্রশাসনকে অবহিত করেন। এই অভিযোগের প্রেক্ষিতে ভূমি কর্মকর্তা ঘটনাস্থলে ছুটে যান এবং ভবন নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেন।

ব্যবসায়ী আকতারুজ্জামানের এই অভিযোগটি গুরুত্ব দিয়ে দেখা হচ্ছে জানিয়ে উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা নিশাত তামান্না বরিশালটাইমসকে বলেন, বিষয়টি তারা নিখুতভাবে খতিয়ে দেখছেন। এছাড়া অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তা তদারকি করছেন। এখানে কোনো প্রকার অনিয়মকে প্রশ্রয় দেওয়া হবে না। অভিযোগসমূহের প্রমাণ মিললে প্রয়োজনে বরাদ্দ দেওয়া ভূমির ইজারা বাতিলে উদ্যোগ নেওয়া হবে।

এর আগে রোববার বিষয়টি নিয়ে অনুরুপ মন্তব্য করে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) রাজিব আহম্মেদ বলেন, সকলের কাগজপত্র যাচাই-বাচাই করে দেখা হয়েছে। এবং তদন্ত করে ভূমি কর্মকর্তাকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়। এতে ইজারা দেওয়া জমি বিক্রি বা পাকা ভবন নির্মাণ করার অভিযোগের প্রমাণ মিললে যথাযথ আইনে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

এদিকে সরকারি এই জমি নিয়ে অনিয়মে রিপনকে ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার সিরাজের বিরুদ্ধে সার্বিক সহায়তা দেওয়ার অভিযোগ পাওয়ায় যায়। এমনকি তাকে বলতেও শোনা যায়, রিপন বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে ইজারা বাতিল হয়ে যাবে। তার থেকে তোরা ভাগঝোক করে জমিটি খা। সার্ভেয়ারের এমন বক্তব্যের একটি ভিডিও চিত্র আমাদের হাতে এসেছে। এবং সার্ভেয়ারের আরও কিছু অভিযোগের ফিরিস্তি প্রকাশ পাচ্ছে। এনিয়ে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন পেতে বরিশাল নিউজ24 চোখ রাখুন….

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© 2021 - All rights Reserved - BarishalNews24
Design and Developed by Sarjan Faraby