1. gazia229@gmail.com : admin :
স্ত্রীর সহযোগিতায় প্রতিবেশী কিশোরীকে ধর্ষণ ! অতঃপর - BarishalNews24
শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০২:১৪ অপরাহ্ন

স্ত্রীর সহযোগিতায় প্রতিবেশী কিশোরীকে ধর্ষণ ! অতঃপর

প্রতিবেদক:
  • প্রকাশকাল: শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১
  • ৮৯ বার দেখা হয়েছে

অনলাইন ডেস্ক::
নেত্রকোণার মদনে প্রতিবেশীর ধর্ষনে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে এক কিশোরী(১৩)। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নে দেওয়ান পাড়ায়। এ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা সমলা খাতুল বাদী হয়ে প্রতিবেশী আছেন আলীর ছেলে আজিজুল (৪৮) ও তার স্ত্রী জরিনা আক্তার (৪০) কে আসামি করে বৃহস্পতিবার রাতে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য আজ শুক্রবার নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতে প্রেরণ করা হবে।

পুলিশ ও কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, অভিযুক্ত আজিজুলের বাড়ি ঘর না থাকায় ফতেপুর দেওয়ার পাড়ার তাজমুরের ছেলে ফরিদের বাড়িতে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছে। প্রতিবেশী আজিজুল ও ওই কিশোরীর মধ্যে দাদা-নাতির সম্পর্ক। ওই কিশোরী ২০২০ সালের ২৫ ডিসেম্বর দিনের বেলায় আজিজুলের বসত ঘরে যায় পান আনতে। এ সময় আজিজুল তার স্ত্রীর সহযোগিতায় ওই কিশোরীর সাথে শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। পরে ওই দিন রাতেই আজিজুল কিশোরীকে মুখে গামছা বেধে জোর পূর্বক তার ঘরে নিয়ে আবারো ধর্ষণ করে। এ ঘটনা কাউকে বললে তাকে খুন করার হুমকি দেয় আজিজুল। পরে ভয়ভীতি দেখিয়ে একাধিক বার ধর্ষণ করায় ওই কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার বিষয়টি গত ২২ এপ্রিল ওই কিশোরী পরিবারের লোকজনকে খুলে বলে।

কিশোরীর মা সমলা আক্তার বলেন, প্রতিবেশী আছেন আলীর ছেলে আজিজুলের ধর্ষণে আমার মেয়ে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। কত মাসের অন্তঃসত্ত্বা তা আমরা এখনো জানি না। আমি এ ঘটনার ন্যায় বিচার চাই।

মদন থানার ওসি ফেরদৌস আলম বলেন, ধর্ষণে কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় তার মা বাদী হয়ে দুই জনকে আসামি করে বৃহস্পতিবার রাতে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে। আসামি গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা চলছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© 2021 - All rights Reserved - BarishalNews24
Design and Developed by Sarjan Faraby